দিরাই উপজেলা নির্বাচনে প্রদীপ_সুদীপ ও ছবি জয়ী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ০৯ মে ২০২৪ ১০:০৫

দিরাই উপজেলা নির্বাচনে প্রদীপ_সুদীপ ও ছবি জয়ী

৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রথম ধাপে সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ৮ মে বুধবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায়, ভাইস চেয়ারম্যান পদে এ বি এম মনসুর সুদীপ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ছবি চৌধুরীকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে।

উপজেলার মোট ৭৪টি কেন্দ্রে বিরতিহীনভাবে ভোট গ্রহণের মধ্য দিয়ে প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ রায় (দোয়াত-কলম) প্রতীকে ৩০ হাজার ৪৭২টি ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রঞ্জন কুমার রায় (ঘোড়া) প্রতীকে ১৮ হাজার ৯১৩ ভোট পেয়েছেন। এছাড়া উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক (বহিষ্কৃত) ও উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ গোলাপ মিয়া (আনারস) প্রতীকে পেয়েছেন ১৫ হাজার ৫২৫ ভোট, এডভোকেট মোঃ আজাদুল ইসলাম রতন (মোটরসাইকেল) প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ২৯১ ভোট, উপজেলা পরিষদের বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিপা সিনহা (টেলিফোন) প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ৩১৮ ভোট।

মোট ভোট পড়েছে ৭০ হাজার ৩২৮টি, এরমধ্যে বৈধ ৬৮ হাজার ২০১টি, বাতিল হয়েছে ২ হাজার ১২৭টি, ভোটের হার শতকরা ২৭ দশমিক ৩৯ শতাংশ।

এদিকে ভাইস চেয়ারম্যান পদে এ বি এম মনসুর সুদীপ (টিয়া পাখি) প্রতীকে ২৪ হাজার ৫২৬ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন।তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ফায়সাল আহমাদ(টিউবওয়েল) প্রতীকে ১৮ হাজার ৮৬৮ ভোট পেয়েছেন।

এছাড়া নাজমুল হাসান (চশমা) প্রতীকে পেয়েছেন ১২ হাজার ৭৩৩ ভোট, মোঃ এখলাছুর রহমান (তালা) ৯ হাজার ৪৪২ ভোট, রুহুল আমিন (উড়োজাহাজ) প্রতীকে ৩ হাজার ১২ ভোট পেয়েছেন। মোট ভোট পড়েছে ৬৮ হাজার ৫৫৩টি, এরমধ্যে বৈধ ৬৫ হাজার ৫৬৯টি, বাতিল ২ হাজার ৯৮৪টি, ভোটের হার শতকরা ২৭ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

অন্যদিকে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ছবি চৌধুরী (হাঁস) প্রতীকে পেয়েছেন ২৮ হাজার ২৮৪ ভোট, তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী হাফছা বেগম (সেলাই মেশিন) প্রতীকে ২৩ হাজার ২১৩ ভোট, মোঃ রীনা বেগম (ফুটবল) প্রতীকে পেয়েছেন ১৬ হাজার ৮৬১ ভোট। মোট ভোট পড়েছে ৭১ হাজার ৬২১টি, এরমধ্যে বৈধ ৬৮ হাজার ৩৫৮টি, বাতিল ৩ হাজার ২৬৩টি, ভোটের হার শতকরা ২৭ দশমিক ৩৭ শতাংশ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ