নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে স্মরণীয় টেস্ট জয় বাংলাদেশের

প্রকাশিত:শনিবার, ০২ ডিসে ২০২৩ ০১:১২

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে স্মরণীয় টেস্ট জয় বাংলাদেশের

২০২২ সালে মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে প্রথমবারের মতো টেস্টে নিউজিল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারিয়ে ইতিহাস তৈরি করেছিল বাংলাদেশ। আর আজ ঘরের মাঠে প্রথমবারের মতো কিউইদের হারিয়ে আবারও ইতিহাস গড়লো টাইগাররা। অধিনায়ক হিসেবে নিজের প্রথম টেস্টেই জয় পেয়ে বাজিমাত করলেন নাজমুল হোসেন শান্ত। আর টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের নতুন চক্রে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই পয়েন্ট পেল টাইগাররা।

কিউইদের বিপক্ষে ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত হওয়া এই টেস্ট দলে ছিলেন না অধিনায়ক সাকিব আল হাসান ও সহ-অধিনায়ক লিটন দাস। নেই অভিজ্ঞ তামিম ইকবালও। সদ্য শেষ হওয়া বিশ্বকাপে ভরাডুবির কারণে সিলেটে ম্যাচ শুরুর আগেই বাংলাদেশের হার দেখছিলেন অনেকেই। তবে দলগত পারফরম্যান্সে শক্তিশালী নিউজিল্যান্ডকে ১৫০ রানের বড় ব্যবধানে হারালো বাংলাদেশ। এ জয়ে দুই ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল টাইগাররা।

বাংলাদেশের দেওয়া ৩৩২ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে তাইজুল ইসলামের স্পিন ঘূর্ণিতে মাত্র ১৮১ রানেই অলআউট হয়েছে কিউইরা।একাই ৬ উইকেট শিকার করেছেন তাইজুল। নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারে ১২তম ফাইফারের দেখা পেয়েছেন তিনি।

সিলেট টেস্টে চতুর্থ দিন শেষে ৭ উইকেটে ১১৩ রান তুলে নিউজিল্যান্ড। পঞ্চম দিনে ইস সোধিকে নিয়ে মাঠে নামেন ড্যারেল মিচেল। আগের ম্যাচে ৪৪ রানে অপরাজিত থাকা মিচেল আজ তুলে নেন অর্ধশতক। ৬ ‍টি চারের সাহায্যে ৯৯ বলে অর্ধশতক তুলে নেন তিনি।

তবে এই জুটিকে বেশিদূর এগোতে দেননি স্পিনার নাঈম হাসান। নাঈমকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে স্কোয়ার লেগে তাইজুল ইসলামের হাতে তালুবন্দি হয়ে সাজঘরে ফিরে গেছেন মিচেল। আউট হওয়ার আগে করেছেন ১২০ বলে ৫৮ রান।

ড্যারিল মিচেলের বিদায়ের পর ইস সোধির সঙ্গে জুটি গড়েন টিম সাউদি। এই জুটিকে ভেঙে কিউইদের বিপক্ষে প্রথমবারের মতো এক ইনিংসে পাঁচ উইকেট তুলে নেন তাইজুল ইসলাম। তাইজুলের বলে শর্ট মিড উইকেটে জাকির হাসানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফিরে যান টিম সাউদি।

এরপর কিউইদের ইনিংস আর বেশিদূর এগোতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত ১৮১ রানেই থামে কিউইরা। বাংলাদেশের হয়ে তাইজুল ৬ টি, নাঈম হাসান ২টি, মেহেদি মিরাজ ও শরিফুল একটি করে উইকেট শিকার করেন।

সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হওয়া এই টেস্টে কিউইদের বিপক্ষে টস জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ব্যাটিংয়ে নেমে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৩১০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশ। স্বাগতিকদের হয়ে ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয় সর্বোচ্চ ৮৬ রান করেন। এছাড়া অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত-মুমিনুল হক ৩৭ রান করে, নুরুল হাসান ২৯, অভিষেক হওয়া শাহাদাত হোসেন ২৪ ও মেহেদি হাসান মিরাজ ২০ রান করেন। সফরকারীদের হয়ে পার্ট-টাইমার গ্লেন ফিলিপস সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন। কাইল জেমিসন-এজাজ প্যাটেল দুটি করে এবং ইশ সোধি ও সাউদি একটি করে উইকেট নেন।

জবাবে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৩১৭ রান তুলে সফরকারীরা। কিউইদের হয়ে সেঞ্চুরি তুলে নেন কেন উইলিয়ামসন। বিরুদ্ধ কন্ডিশনে বাকি ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার বিপরীতে একপ্রান্ত আগলে রেখে অনবদ্য সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি। শেষ পর্যন্ত সাজঘরে ফেরার আগে করেন ২০৫ বলে ১০৪ রান। চলিশোর্ধ্ব রানের ইনিংস রয়েছে গ্লেন ফিলিপস ও ড্যারিল মিচেলের। শেষ দিকে টিম সাউদির ৬২ বলে ৩৫ ও কাইল জেমিসনের ৭০ বলে ২৩ রানের সুবাদে সাত রানের লিড পায় কিউইরা।

এরপর বাংলাদেশ তাদের দ্বিতীয় ইনিংসে করে ৩৩৮ রান। বাংলাদেশের হয়ে এই ইনিংসে সেঞ্চুরি তুলে নেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। এছাড়া মুমিনুল হক ৪০, মুশফিকুর রহিম ৬৭ ও মেহেদী হাসান মিরাজের ৫০ রান করেন। শেষ পর্যন্ত সব উইকেট হারিয়ে ৩৩৮ রান তুলে টাইগাররা। আর জয়ের জন্য কিউইদের ৩৩২ রানের লক্ষ্য দেয় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের দেওয়া ৩৩২ রানের লক্ষে ব্যাট করতে নেমে তাইজুলের স্পিন ঘূর্ণিতে মাত্র ১৮১ রানে অলআউট হয়েছে কিউইরা। যার ফলে ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম বারের মতো জয় তুলে নিয়েছে টাইগাররা।

এ নিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১৮ টেস্টের দেখায় এ নিয়ে দ্বিতীয় জয়ের স্বাদ পেয়েছে বাংলাদেশ। সিলেট পর্বে সফল শান্ত বাহিনীর পরবর্তী অভিযান ঢাকার মিরপুরে। সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচটি মাঠে গড়াবে ৬ ডিসেম্বর। অধিনায়ক হিসেবে প্রথম টেস্ট ম্যাচে জয়ের দেখা পাওয়া শান্তর সামনে এখন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দলকে প্রথমবার টেস্ট সিরিজ জিতিয়ে ইতিহাস গড়ার হাতছানি।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ