নগরীতে জামায়াতের ঝটিকা মিছিল, ককটেল বিষ্ফোরণ

প্রকাশিত:বুধবার, ১৫ নভে ২০২৩ ১০:১১

নগরীতে জামায়াতের ঝটিকা মিছিল, ককটেল বিষ্ফোরণ

জাতীয় সংসদের তফসিল ঘোষণার পর সিলেট নগরে বিক্ষোভ মিছিল ও ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটিয়েছে জামায়েতে ইসলাম সিলেট মহানগর।

আজ বুধবার (১৫ নভেম্বর) সাড়ে ৭টার দিকে  সিলেট নগরের আম্বরখানা এলাকায় ঝটিকা মিছিল বের করে জামায়াতে ইসলামী বাংলাদেশ। এসময় তারা ‘তফসির ঘোষণা মানি না’-সহ নানা স্লোগান দিতে থাকে।

মিছিলে সিলেট মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারী মোহাম্মদ শাহজাহান আলী, সহকারী সেক্রেটারী অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ আব্দুর রব ও ছাত্রশিবির সিলেট মহানগর সভাপতি সিদ্দিক আহমদ প্রমূখ ছিলেন।

মিছিলটি নগরের বড় বাজার এলাকা থেকে বের হয়ে আম্বরখানা পয়েন্টের কাছে এসে ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটায়। এসময় এলাকা জুড়ে আতঙ্ক দেখা দেয়। এসময় পুলিশকে লক্ষ করেও ইটপাটকেল ছুড়েন নেতাকর্মীরা। পরে দ্রুত ঝটিকা মিছিল শেষ করে তারা স্থান ত্যাগ করেন।

জামায়াতে ইসলামী সিলেট মহানগরের সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো বিবৃতি বলা হয়, ‘সিলেট মহানগর জামায়াত নেতৃবৃন্দ বলেছেন, একতরফা প্রহসনের নির্বাচন করতে সরকারের আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশনের তফসিল জাতি ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে। দেশের রাজনৈতিক সঙ্কট সমাধান না করে এই তফসিল ঘোষণা দেশকে চরম সংঘাতের দিকে ঠেলে দেয়ার ষড়যন্ত্র। অবিলম্বে এই কথিত তফসিল বাতিল করতে হবে। নিরপেক্ষ কেয়ারটেকার সরকার পুনর্বহাল ও আমীরে জামায়াতসহ জাতীয় নেতৃবৃন্দের মুক্তি ছাড়া দেশে একতরফা নির্বাচনের ষড়যন্ত্র দেশপ্রেমিক জনতা সফল হতে দেবে না।‘

তারা বলেন, ‘দেশ জাতির চরম ক্রান্তিলগ্নে রাজনৈতিক সঙ্কট সমাধান না করে জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা জাতির সাথে তামাশার শামিল। দেশে নির্বাচনের কোন পরিবেশ নেই। রাজনৈতিক সঙ্কটের মধ্যে তফসিল ঘোষণার তোড়জোড় প্রমাণ করে নির্বাচন কমিশন সরকারের আজ্ঞাবহ সেবাদাসমূলক প্রতিষ্ঠান। কঠোর আন্দোলনের মাধ্যমে এই নির্বাচন কমিশনকে পতদ্যাগে বাধ্য করতে অবরোধসহ জামায়াত ঘোষিত যুগপৎ কর্মসূচী সফল করতে হবে। হামলা-মামলা, গ্রেফতার-নির্যাতন চালিয়ে চলমান গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার আন্দোলন দমিয়ে রাখা যাবে না।‘