তফসিল ঘোষণা হলে ১৫ নভেম্বর নির্বাচন কমিশন অভিমূখে গণমিছিল ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ১৪ নভে ২০২৩ ০৮:১১

তফসিল ঘোষণা হলে ১৫ নভেম্বর নির্বাচন কমিশন অভিমূখে গণমিছিল ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশর

সুরমাভিউ:-  রাজনৈতিক সমঝোতা ছাড়া একতরফা আত্মঘাতির তফসিল ঘোষণা দেশবাসী মানবে না বলে মন্তব্য করেছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য প্রিন্সিপাল মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিলস্নাহ আল-মাদানী।

তিনি বলেন, আন্দোলনরত বিরোধী দলগুলোর সাথে সমঝোতা ছাড়া একতরফা তফসিল ঘোষণা হলে আগামীকাল ১৫ নভেম্বর বিকাল ৩টায় বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে জমায়েত শেষে নির্বাচন কমিশন অভিমুখে গণমিছিল হবে।

একতরফা তফসিল ঘোষণা দেশকে গৃহযুদ্ধের পথে নিয়ে যাবে। রাজনৈতিক সমঝোতা ছাড়া একটি দলের ইচ্ছা পুরণের তফসিল দেশবাসী মানবে না। রাজনৈতিক দলগুলোকে আস্থায় না নিয়ে সমঝোতাবিহীন তফসিল ঘোষণা হলে নতুন করে দেশে সংকট তৈরি হবে এবং দেশ নিশ্চিত গৃহযুদ্ধের দিকে ধাবিত হবে।

আজ মঙ্গল বিকেলে পল্টনস্থ কার্যালয়ে দেশের চলমান সঙ্কটজনক রাজনৈতিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন মহাসচিব প্রিন্সিপাল হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য আলহাজ্ব খন্দকার গোলাম মাওলা ও অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা গাজী আতাউর রহমান, মুহাম্মদ আমিনুল ইসলাম ও ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম, সহকারী মহাসচিব অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ ও সাংগঠনিক সম্পাদক কেএম আতিকুর রহমান প্রমূখ।

প্রিন্সিপাল মাওলানা মাদানী বলেন, নির্বাচন কমিশন দলীয় সরকারের অধীনে তফসিল ঘোষণা করলে দলদাস হিসেবে চিহ্নিত হবেন। দেশের অধিকাংশ রাজনৈতিক দলের মতামত উপেক্ষা করে ইসি হাবিবুল আউয়াল কমিশন নির্বাচনের নামে জাতির সামনে আরেকটি তামাশার দ্বার উন্মোচন করতে চায়। কিন্তু জনগণ তা কোনভাবেই মানবে না।