শ্রীমঙ্গলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার, ০২ জুন ২০২২ ০৮:০৬

শ্রীমঙ্গলে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত

অরবিন্দ দেব, শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি:-  মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল চন্দ্রনাথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যেদিয়ে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলে শিক্ষার্থীদের ভোট গ্রহণ। স্কুলের শিক্ষার্থীরা সারিবদ্ধভাবে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোটের মাধ্যমে রায় দিয়ে তাদের নেতা নির্বাচন করেছেন। তৃতীয় শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণর শিক্ষার্থীরা এ নির্বাচনে ভোট প্রদান করেছেন। বিদ্যালয়ে তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের প্রত্যক্ষ ভোটে ৭জন প্রার্থী ভোটে জয়ী হয়েছে।

তৃতীয় শ্রেণি থেকে ৮৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে তানিয়া আক্তার, ৭৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে তাইয়্যাম মাহমুদ আরাফ।

চতুর্থ শ্রেণি থেকে দুইজন ৮৭ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে কিরন রানী দাশ, মুগ্ধতা রায় মোহনা ও ৭৮ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে শেখ মিরাজুল ইসলাম জিসান।

পঞ্চম শ্রেণি থেকে সর্বোচ্চ ১১৯ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে সৃজা দত্ত এবং নাহিদুল ইসলাম রাফি ৮১ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছে । বিজয়ীরা সহপাঠ কার্যক্রম, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা, পুস্তক এবং শিখন সামগ্রী, অনুষ্ঠান উদযাপন এবং আইসিটি কার্যক্রমের দায়িত্ব পালন করবে।

শ্রীমঙ্গল চন্দ্রনাথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জহর তরফদার জানান, শিশুদের মধ্যে গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ সৃষ্টির লক্ষে সারাদেশের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালগুলোর মতো শ্রীমঙ্গল চন্দ্রনাথ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়েও এই নির্বাচনের আয়োজন করা হয়েছে। নির্বাচন অবাদ ও নিরপেক্ষ করার লক্ষে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে থেকে ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী সেতু ঘোষ প্রধান নির্বাচন কমিশারের দায়িত্ব পালন করেন। প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করে ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিজিৎ সেবক অর্ঘ্য। পোলিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করে ৫ম শ্রেণির শিক্ষার্থী জিহান মাহমুদ, সাজ্জাদ হোসেন ও ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী শতাব্দী সিনহা সৃষ্টি।

প্রিজাইডিং অফিসার অরিজিৎ সেবক অর্ঘ্য জানান, মোট ভোটার ছিলো ৪৬৩ জন। এর মধ্যে ৩০০ জন শিক্ষার্থী ভোট প্রদান করে। সকাল ৯টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয় এবং দুপুর ১টা পর্যন্ত অত্যন্ত শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খলভাবে স্টুডেন্ট কাউন্সিল নির্বাচন সম্পন্ন হয় এবং আড়াইটায় ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক প্রনবেশ চৌধুরী অন্তু জানান, ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা সরাসরি নির্বাচন ও নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় অংশ নিতে পেরে বড্ড খুশি। শিশুকাল থেকে পরিবেশ উন্নয়নমূলক কর্মসূচিতে অংশ নেয়া , বিদ্যালয়ের লেখাপড়া, খেলাধুলা ও সাংস্কৃতিক পরিমন্ডলে বেড়ে ওঠার ক্ষেত্রে এ নির্বাচনের মাধ্যমে লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য পূরণে এগিয়ে যাওয়া অনেকখানি সম্ভব। বিশেষ করে শৈশব থেকে গণতন্ত্রের চর্চা , অন্যের মতামতের প্রতি সহিষ্ণু থাকা, মূল্যবোধের প্রতি শ্রদ্ধাভাব এগুলো অর্জন অনেকটা সহজতর হতে পারে। এ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ থেকে শুরু করে সব কিছুই শিক্ষার্থীরাই এসব কাজের দায়িত্ব পালন করেছেন। ভোটারদের কাছে ভোট প্রার্থনা করে হাতের লিখিত লিফলেট, ক্যাম্পেইন সবই করেছে প্রার্থীরা। স্কুলে জাতীয় নির্বাচনের আদলে বসানো হয় বিদ্যালয়ে গোপন বুথ। ব্যালট বাক্স, ব্যালট পেপার ছাপানো হয়েছে প্রার্থীদের নামে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ