ঢাকাকে ৩ রানে হারিয়েছে চট্টগ্রাম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার, ০৮ ফেব্রু ২০২২ ০৪:০২

ঢাকাকে ৩ রানে হারিয়েছে চট্টগ্রাম

জয়ের জন্য শেষ দুই ওভারে ২০ রানের দরকার ছিল মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকার। ১৯তম ওভারে আসে ১১ রান। ফলে জিততে হলে শেষ ওভারে করতে হতো মাত্র ৯ রান। কিন্তু চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের উদীয়মান পেসার মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরীর করা বলে দলকে লক্ষ্যে নিতে পারলেন না তামিম-নাঈম শেখরা। তীরে এসে তরী ডুবিয়ে চট্টগ্রামের কাছে ২ রানে হেরেছে মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকা।

১৪৯ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি ঢাকার। পাওয়ার প্লেতেই মূল্যবান তিনটি উইকেট হারিয়ে বসে দল। ৭ রানে মোহাম্মদ শেহজাদ, ৮ রানে ইমরানউজ্জামান এবং শূন্যরানে আউট হন মাশরাফি বিন মর্তুজা।

এরপর চতুর্থ উইকেটে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে নিয়ে এবং পঞ্চম উইকেটে শুভাগত হোমকে নিয়ে দলকে জয়ের দিকেই নিতে থাকেন ওপেনার তামিম ইকবাল খান। ২৪ রানে মাহমুদউল্লাহ এবং ২২ রানে শুভাগত সাজঘরে ফেরেন। আর আউট হওয়ার পূর্বে ১ রান করেন কায়েস আহমেদ।

এরপরও ক্রিজে তামিম থাকায় জয়ের স্বপ্নই দেখছিলো ঢাকা। কিন্তু মৃত্যুঞ্জয়ের দুর্দান্ত বোলিংয়ে জয় পেয়ে যায় চট্টগ্রাম। ৭৩ রানে তামিম এবং ২ রানে নাঈম অপরাজিত থাকেন।

এর আগে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরুতে টস জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১ রান করতে সাজঘরে ফেরেন চট্টগ্রামের ওপেনার জাকির হাসান। আরেক ওপেনার উইল জ্যাকস করেন ২৬ রান।

এদিকে ব্যাট হাতে মাত্র ২ রান করতে পেরেছেন মেহেদি হাসান মিরাজ। আর দ্বিতীয় উইকেটে ব্যাট করতে নেমে ২৭ রানের ক্যামিও ইনিংসটি খেলেন দলনেতা আফিফ হোসেন ধ্রুব। আকবর আলি ব্যক্তিগত খাতায় যোগ করতে পেরেছেন ৯ রান।

ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে বেনি হাওয়েলকে সঙ্গে নিয়ে ৫৮ জুটি গড়েন শামীম হোসেন পাটোয়ারি। তাতেই ১৪৮ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর পেয়ে যায় চট্টগ্রাম। দলের ব্যক্তিগত অর্ধশতক পূর্ণ করেন শামীম। ৩৭ বলে খেলা ইনিংসটি ৭টি চার এবং একটি ছয়ে সাজানো।

এদিকে ২৪ রানে হাওয়েল এবং শূন্যরানে মৃতুঞ্জয় অপরাজিত থাকেন। ঢাকার পক্ষে একটি করে উইকেট পেয়েছেন ছয়জন বোলার।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ