এবার রাজনগর থানার ওসির বিরুদ্ধে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ

প্রকাশিত:শনিবার, ২২ জানু ২০২২ ০৯:০১

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি:-  মৌলভীবাজারের রাজনগর থানার ওসি নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে ঘুষ দুর্নীতির অভিযোগসহ নানা অনিয়ম উপস্থাপন করে ১১ জনপ্রতিনিধিরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।
১৩ জানুয়ারি রাজনগর উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় আলোচনা করে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানসহ ৮টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যানরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
তাঁরা অভিযোগে উল্লেখ করেন, মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নজরুল ইসলাম রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের সময় যথাযথ সম্মান প্রদর্শন না করা এবং সার্বিক আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির পাশাপাশি গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নিজস্বার্থে বিভিন্ন অনিয়মের সাথে জড়িত ছিলেন । মামলা গ্রহণ পরবর্তী বাদী ও বিবাদীর নিকট থেকে ঘুষ দাবি করে অর্থ আদায়সহ আওয়ামীলীগ বিদ্বেষী এবং স্বাধীনতা বিরোধীদের মদদপুষ্টতার অভিযোগও রয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, স্বাধীন বাংলাদেশের সুবর্ন জয়ন্তী পালন উপলক্ষে রাজনগর উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত মহান বিজয় দিবস-২০২১ উদযাপনকালে রাজনগর থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম স্বাধীন বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলনকালে ইউনিফর্মধারী হিসেবে স্যালুটরত অবস্থায় থাকার বিধান থাকা স্বত্বেও তিনি জাতীয় পতাকাকে যথাযথ সম্মান প্রদর্শন না করে দাড়িয়ে থাকেন ।
নজরুল ইসলাম রাজনগর থানার অফিসার ইনচার্জ হিসেবে যোগদানের পর থেকে ঘুষখোর, নীতিবিবর্জিত, স্বার্থান্বেষী এবং স্বাধীনতা বিরোধীদের মদদপুষ্ট কর্মকর্তা হিসেবে প্রমাণ রয়েছে । অফিসার ইনচার্জ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পরবর্তীতে শান্তিপ্রিয় রাজনগর উপজেলায় মারাত্মকভাবে অপরাধ প্রবনতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশেষ করে তিনি বিভিন্ন মামলা গ্রহণ পরবর্তী বাদী ও বিবাদীর নিকট হতে বিভিন্নভাবে ঘুষ দাবী করে অর্থ আদায় করে থাকেন যা সাধারণ জনগণ ভয়ে তাঁর বিরুদ্ধে মুখ খুলতে চান না।
এলাকার সাধারন জনগণ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের নিকট ওসির বিরুদ্ধে ওসির দুর্নীতি ও অনিয়ম এর বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করেন এবং অনিয়মের কারণে সাধারণ জনগণ ন্যায় বিচার প্রাপ্তির পরিবর্তে হয়রানীর শিকার হন। লিখিত অভিযোগে আরও উল্লেখ করেন ওসির কার্যক্রমে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার তথা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ভাবমূর্তি অনেকাংশে ক্ষুন্ন হচ্ছে। গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন-২০২১ অনুষ্ঠানের সময় অত্র থানার অফিসার ইনচার্জ নিজস্বার্থে বিভিন্ন অনিয়মের সাথে জড়িত ছিলেন। তার প্রত্যক্ষ মদদে গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী উপজেলায় স্বাধীনতা বিরোধীরা সক্রীয় কার্যক্রম পরিচালনা করতে সাহস পাচ্ছে। অপরাধ প্রবনতা, বিভিন্নভাবে ঘুষ আদায়ের ফলে রাজনগর থানায় ন্যায় বিচার পাওয়ার পরিবর্তে সাধারণ জনগন হয়রানির শিকার হন। এছাড়া তার দ্বারা আওয়ামীলীগের সমর্থক, সদস্য ও নিরীহ নেতাকর্মীরা বিভিন্নভাবে হয়রানীর শিকার হয়েছেন। ফলে তৃনমূলের আওয়ামীলীগের কর্মীরা ভীতসন্ত্রস্থ জীবযাপন করছেন।
রাজনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান খান বলেন, উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত মহান বিজয় দিবস-২০২১ উদযাপনকালে জাতীয় পতাকা উত্তোলনকালে ইউনিফর্মধারী হিসেবে স্যালুটরত অবস্থায় থাকার বিধান থাকা স্বত্বেও তিনি জাতীয় পতাকাকে যথাযথ সম্মান প্রদর্শন করেন নি। এ বিষয়ে একজনের ডাকযোগে প্রেরিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় আলোচনা হয় এবং লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়।
উল্লেখ্য যে, এর আগে জায়গা দখলের সহযোগিতার অভিযোগে এক ওমান প্রবাসী বৃদ্ধ  ওসি নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে ৩১ শে আগষ্ট ২০২১ ইংরেজী তারিখে পুলিশ সুপার বরাবর অভিযোগ দায়ের করেন।
এ বিষয়ে জানতে চেয়ে রাজনগর থানার ওসি নজরুল ইসলামকে মোবাইল ফোনে কল দিলে তিনি জানান, শুনেছি আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হয়েছে। আশা করি তদন্তে আমি নির্দোষ প্রমাণিত হব।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ