জগন্নাথপুরে প্রতীক বরাদ্দের আগেই বিধি লঙ্ঘন করে প্রচারণা নৌকার প্রার্থীর

প্রকাশিত:শুক্রবার, ১২ নভে ২০২১ ১০:১১

মোঃ আলী হোসেন খাঁন, জগন্নাথপুর:-  সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলার ৭ টি ইউনিয়ন পারিষদের নির্বাচন আগামী ২৩ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণ শুরু। নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘন করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেইসবুকে প্রচারণা চালাচ্ছেন চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আ. লীগ প্রার্থী আরশ মিয়ার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ উঠেছে।

১০ নবেম্বর ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী চতুর্থ ধাপে সারাদেশের ৮৪০ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়, এদিকে জগন্নাথপুরে ৭ টি ইউনিয়নে নির্বাচন হবে একই তারিখে।

মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ সময় আগামী ২৫ নভেম্বর মনোনয়ন বাছাই ২৯ নভেম্বর এবং প্রত্যাহার ৬ ডিসেম্বর। আর ভোট গ্রহণ অনুষ্টিত হবে ২৩ ডিসেম্বর।

সরকার দলীয় প্রার্থীর পাশাপাশি অন্যপ্রার্থীরাও বসে নেই। তারাও বিভিন্ন ঘরোয়া সভায় অংশ নিচ্ছেন।

আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রচারণার বিষয়ে অবগত নন নির্বাচন কর্মকর্তারা। তবে, অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানান তারা।

প্রতীক বরাদ্দের আগেই আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রার্থীর ছবি ও নৌকা মার্কার সাদা কালো পোষ্টার বানিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রচার প্রচারণা চালাচ্ছেন তার শুভাকাঙ্ক্ষীরা।

এসব ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করেছে
আমরা খুবই হতাশাগ্রস্ত, মর্মাহত এভাবে আচরণবিধি লঙ্ঘন করে প্রচারণা করার ফলে ইউনিয়ন বাসীর শান্তি নষ্ট হবে বলে মন্তব্য করেছেন সচেতন মহল।

আমরা চাই একটি সুন্দর সুষ্ঠু নির্বাচন হোক। এভাবে আচরণবিধি ভেঙে একটি ত্রিমুখী দ্বন্দ্ব তৈরির চেষ্টা চলছে। আমরা প্রশাসনের কাছে দাবি করছি, একটি সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের আয়োজন করা হোক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে নৌকার মনোনীত প্রার্থী আরশ মিয়া ফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

জগন্নাথপুর উপজেলা আ,লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম বকুল বলেন এখনও আমাদের ইউনিয়ন থেকে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থীদের নাম দেওয়া হয়নি, তিনি কিভাবে নৌকা পেয়েছেন আমরা জানিনা আমরা দেখেছি ফেইসবুকে আরশ মিয়ার নৌকার প্রচারণা এটা হাস্যকর বিষয় এটা কোনো সুযোগ্য প্রার্থী এ ধরণের কাজ করতে পারেনা,আমিও একজন চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের নৌকার মনোনয়ন প্রার্থী।

এ বিষয়ে জগন্নাথপুর উপজেলা আ. লীগের সভাপতি আকমল মিয়া বলেন, ফেইসবুকের বিষয়টি আমার জানা নেই, এবং চিলাউড়া হলদিপুর ইউনিয়নের নাম এখনও আমাদের কাছে আসেনা।

জগন্নাথপুর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান বলেন, তফসিল ঘোষণা করার পর এভাবে কেউ প্রচারণা করতে পারবে না। সেটা আচরণবিধি লঙ্ঘন হবে। আমাদের কাছে কোন প্রার্থী অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আমরা ব্যবস্থা নেব।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ