মৌলভীবাজারে একইদিনে করোনায় মৃত ২ ব্যক্তির লাশ দাফন করলো তাকরীম ফাউন্ডেশন

প্রকাশিত:রবিবার, ১৫ আগ ২০২১ ০৬:০৮

মোঃ তাজুদুর রহমান, মৌলভীবাজার:- শনিবার ১৪ আগস্ট ভোর ৬ ঘটিকায় কমলগঞ্জ উপজেলার ৩নং মুন্সিবাজার ইউনিয়নের ধীতেশ্বর গ্রামের মোঃ মোস্তফা মিয়া (৬০)করোনা পজেটিভ নিয়ে সিলেটের একটি প্রাইভেট হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত মোস্তফা মিয়ার পরিবারের পক্ষ থেকে কোভিড-১৯ (সন্দেহভাজন বা নিশ্চিত রোগে) দাফন কাজে নিয়োজিত মৌলভীবাজারের  স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন তাকরীম ফিউনারেল ফাউন্ডেশন কমলগঞ্জ উপজেলার টিম প্রধান এফ,এম সুমন আহমদ এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি তাকরীম ফিউনারেল ফাউন্ডেশন এর জেলা টিম সমন্বয়কারী সুমন আহমদ এর সাথে যোগাযোগ করে মৃত মোঃমোস্তফা মিয়ার দাফনের প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। মৃতের লাশ গোসল ও কাফন দায়িত্ব পালন শেষে জানাযার নামাজ  শনিবার দুপুর ২টা ১৫ মিনিটে শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মির্জানগর জামে মসজিদ সংলগ্ন ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হয়।
জানাযার নামাজে তাকরীম ফিউনারেল ফাউন্ডেশন এর সদস্যগণ মৃতের আত্বীয় স্বজন ও এলাকাবাসী উপস্থিত হন। এই মহতি কাজে তাকরীম ফিউনারেল ফাউন্ডেশন এর কমলগঞ্জ উপজেলা টিম প্রধান এফ,এম সুমন আহমেদ কমলগঞ্জ উপজেলা সহকারী টিম প্রধান আব্দুল আহাদ ফানু, শিহাবুল করিম, জাকির হোসেন চৌধুরী, এনামুল হক, সুজেল আহমদ,মোঃজবরুল ইসলাম, সাইফুর রহমান মৃতের গোসল, কাফন ও দাফন কাজে উপস্থিত থেকে সহযোগিতায় ছিলেন জেলা সদস্য আব্দুর রশীদ।
পরে মৃত মোঃ মোস্তফা মিয়াকে গ্রামের পঞ্চায়েতি কবরস্থানে দাফন করা হয়। উল্ল্যেখ্য, মৃত মোঃ মোস্তফা মিয়া কমলগঞ্জ উপজেলার ৩নং মুন্সিবাজার ইউনিয়নের ধীতেশ্বর গ্রামের মৃত আব্দুর নুরের পুত্র।
অপরদিকে কমলগঞ্জ উপজেলার ৩নং মুন্সিবাজার ইউনিয়নের নারায়ণক্ষেত্ গ্রামের মোঃআব্দুল মান্নান (৮০) করোনা পজেটিভ নিয়ে ১৪ আগস্ট শনিবার বিকাল ৪ টায় মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে মৃত্যু বরণ করেন। কমলগঞ্জ উপজেলার ৩নং মুন্সিবাজার ইউনিয়ের সাবেক চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন চৌধুরী তাকরীম ফাউন্ডেশনের  কমলগঞ্জ উপজেলা টিমের উপদেষ্টা ও মুন্সিবাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ইমন আহমদ তরফদারকে মৃতের ব্যাপারে অবহিত করে বলেন ৩নং মুন্সিবাজার ইউনিয়নের নারায়ণক্ষেত্ গ্রামের মোঃ আব্দুল মান্নান নামীয় এক ব্যক্তি মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে।
এর দুই ঘন্টা থেকে মৃতের একমাত্র মেয়ে রোকিয়া আক্তার বাবার লাশ নিয়ে হাসপাতালে বড় অসহায় অবস্থায় আছে এবং মৃতের পরিবারকে সহযোগিতা করার জন্য বলেন। সাথে সাথে ইমন আহমদ তরফদার তাকরীম ফাউন্ডেশন এর কমলগঞ্জ টিম প্রধান এফ,এম সুমন আহমদকে মৃতের পরিবারকে সার্বিক সহযোগিতা করে লাশ বহন করে বাড়িতে নিয়ে যাওয়া, গোসল, কাফন ও দাফনের জন্য ব্যবস্থা নিতে বলেন, মৃতের খবর পেয়ে কমলগঞ্জ উপজেলা টিম প্রধান তাকরীম ফাউন্ডেশনের জেলা টিম প্রধান সাইফুল ইসলাম সরকার ও জেলা টিম সমন্বয়কারী সুমন আহমদ এর সাথে যোগাযোগ করলে সংগঠনের জেলা টিম সমন্বয়কারী সুমন আহমদ, সংগঠনের সিনিয়র সদস্য আব্দুল আহাদ, মোঃ আজাদ মিয়া, স্বপন চৌধুরী ও কমলগঞ্জ টিম প্রধান এফ,এম সুমন আহমেদ মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিট থেকে সন্ধ্যার পর লাশ গ্রহণ করে এম্বুলেন্স যোগে লাশ মৃতের বাড়িতে নিয়ে যান।
পরবর্তীতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মৃতের গোসল, কাফন সম্পন্ন করেন সংগঠনের সদস্যগণ। পরে রাত ১০টা ৩০ মিনিটের সময় শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নারায়ণক্ষেত করবস্থান সংলগ্ন জায়গায় মৃতের জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়।
জানাজার নামাজে তাকরীম ফাউন্ডেশনের  সদস্যগণ, মৃতের আত্বীয় স্বজন ও এলাকাবাসী উপস্থিত হন,পরে মৃত মোঃ আব্দুল মান্নানকে নারায়ণক্ষেত কবরস্থানে দাফন করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন,তাকরীম ফিউনারেল ফাউন্ডেশন কমলগঞ্জ উপজেলা টিম প্রধান এফ,এম সুমন আহমেদ, সহকারী টিম প্রধান আব্দুল আহাদ ফানু, মোঃ জবরুল ইসলাম, মোঃফজলুর রহমান, জাকির হোসেন চৌধুরী।
এই মহতী কাজে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত কমলগঞ্জ উপজেলা টিমের সাথে উপস্থিত ছিলেন, তাকরীম ফিউনারেল ফাউন্ডেশন মৌলভীবাজার জেলা টিম সমন্বয়কারী সুমন আহমদ, আব্দুর রশীদ, শাহিন আহমদ ও স্বপন চৌধুরী।
উল্লেখ্য যে, মৃত মোঃআব্দুল মান্নান কমলগঞ্জ উপজেলার ৩নং মুন্সিবাজার ইউনিয়নের নারায়ণক্ষেত গ্রামের মৃত ইউনুছ চৌধুরীর ছেলে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ