ছাতকে শহীদ মিনার থেকে পাঁচ জুয়ারি আটক

প্রকাশিত:বুধবার, ১৬ জুন ২০২১ ০৭:০৬

ছাতক প্রতিনিধি:-  সুনামগঞ্জের ছাতক কেন্দ্রিয় শহীদ মিনার। এখানে বিভিন্ন দিবসে শহীদদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। প্রতিটি দিবস আসলেই পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হয় এবং সারা বছর থাকে অযত্নে অবহেলায় এ শহীদ মিনারটি। পাশাপাশি ছাতক-সিলেট সড়কের উপজেলার মাধবপুর এলাকায় রয়েছে ‘শিঁখা সতের’ নামে আরেকটি শহীদ মিনার। মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানী হায়েনারা গুলী করে এক সাথে ১৭জন বাঙালীকে হত্যা করেছিল।

এ শহীদদের স্মরণে তাদের কবরের উপর নির্মিত হয় শিঁখা সতের নামের ওই শহীদ মিনার। এখানের সব শ্রেনি পেশার মানুষের কাছে এ মিনারগুলো শ্রদ্ধা ও সম্মানের। প্রতিদিনের মতো মঙ্গলবার দুপুরে ছাতক শহরের কেন্দ্রিয় শহীদ মিনারে জুতা পায়ে জুয়ারিরা জুয়া খেতলে থাকে।

এ দৃশ্যটি দেখে মোবাইল ফোনে ছবি তুলে নিজের ফেসবুকে পোষ্ট করেন ছাতক অনলাইন প্রেসক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক সুরমাভিউ২৪ ডটকম ছাতক উপজেলা প্রতিনিধি হাসান আহমদ। বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষন হয়। পরে ছাতক থানার উপ-পরিদর্শক আসাদু্জ্জামান রাসেল এর নেতৃত্বে উপ-পরিদর্শক দেওয়ান উজ্জলসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযান করে পাঁচজন জুয়ারিকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন।

আটককৃতরা হলো, ছাতক পৌরসভার মন্ডলীভোগ এলাকার মৃত ইদ্রিছ আলীর ছেলে রশিদ আহমদ (৪০), রহিম উদ্দিনের ছেলে আলী হোসেন স্বপন (৩৭), নিরেন্দ্র কুমার দাসের ছেলে রিংকু দাস (৩৩), হরিষপুর মিরাপাড়া গ্রামের বইতুল্লা মিয়ার ছেলে হোসাইন আহমদ (৩০) ও পৌর সভার বাগবাড়ি মহল্লার মিন্টু কলোনির বাসিন্ধা মৃত মোহন দাসের ছেলে সিতু দাস (৬০)।

থানার উপ-পরিদর্শক আসাদুজ্জান রাসেল পাঁচজন আটকের বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শহিদ মিনারে তারা টাকা দিয়ে লুডু খেলছিল। তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ