করোনার এ সংকটে সরকারের পাশাপাশি বিত্তবানরাও দানশীলতায় এগিয়ে আসতে হবে – আলহাজ্জ শফিকুর রহমান চৌধুরী

প্রকাশিত:রবিবার, ২৫ এপ্রি ২০২১ ০৯:০৪

সুরমাভিউ:-  সিলেট নগরীর টিলাগড়স্থ আলহাজ্জ অছিয়ত আলী-করিমুন্নেছা হাফিজিয়া দাখিল মাদরাসায় পবিত্র রামাদান উপলক্ষে গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মধ্যে নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়েছে।

গতকাল ২৫ এপ্রিল রোববার দুপুরে মাদরাসার অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালনা কমিটির সদস্য যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী আলহাজ্জ আহমদ আলীর পক্ষ থেকে এ অর্থ বিতরণ করা হয়।

এসময় মাদরাসার প্রিন্সিপাল মাওলানা আখতার হোসাইন জাহেদ-এর সভাপতিত্বে মাদরাসার হলরুমে অনুষ্ঠিত অর্থ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাবেক সংসদ সদস্য ও মাদরাসার প্রধান উপদেষ্টা আলহাজ্জ শফিকুর রহমান চৌধুরী। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, মাহে রামাদান সিয়াম সাধনার মাস, ইবাদাতের মাস। মহান রবের রহমত ও জান্নাত লাভের আশায় এ মাসে আমাদেরকে বেশি করে ইবাদাত বন্দেগী করা উচিত। রামাদানে দান সাদাকাহ একটি বড় ইবাদাত। তাই সিয়াম সাধনার এ মাসে আমাদেরকে বেশি বেশি দান-সাদাকায় এগিয়ে আসতে হবে। তিনি আরো বলেন, করোনা মহামারীর কারণে দেশের মানুষ আজ প্রায় ঘরে বন্দি। এ সময়ে সবচেয়ে বেশি বিপদে আছে নি¤œ আয়ের মানুষ। কিন্তু রামাদান তো হলো দানশীলতা, সহমর্মিতা ও সহানুভূতির মাস। করোনার এ সংকটে সরকারের পাশাপাশি যদি সমাজের বিত্তবানরাও হাতখুলে দান করেন, নি¤œ আয়ের পাড়া-প্রতিবেশী ও আত্মীয় স্বজনদের ব্যাপারে দায়িত্বশীল হন, তাহলে হয়তো তাদের কষ্ট কিছুটা লাঘব হবে, অভাবক্লিষ্ট মানুষের মুখে হাসি ফুটবে সর্বোপরি মানবতা উপকৃত হবে। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও সমাজ সেবক আসাদুজ্জামান আসাদ ও সাংবাদিক বশির আহমদ।

মাদরাসার সহকারী শিক্ষক শাহ জুনেদ আহমদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা আব্দুল মুকিত, হাফিজ মাওলানা আব্দুল আলীম, এমরান আহমদ ও মোছা. মারজানা ইয়াসমিন।

এতে আরো উপস্থিত ছিলেন, মো. মান্নান মিয়া, ইসমাইল হোসেন চৌধুরী, ইব্রাহীম খান, ইউসূফ খান, আরমান আহমদ, ইউনূছ খান ও ইয়াামুন আহমদ প্রমূখ। (প্রেস বিজ্ঞপ্তি)।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ